শিরোনাম :
নবীনগর বাজারের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণ না করার দাবিতে ও স্মারকলিপি প্রদান নবীনগরে ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ লাঠি খেলা দেখতে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড়। নবীনগর উপজেলা শাখা সাংবাদিক কল্যাণ পরিষদ (বাসকপ) আংশিক কমিটি ঘোষণা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক সমিতির সভাপতি জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মাসুম নবীনগর সাংবাদিক সমিতির আত্মপ্রকাশ, সভাপতি কাউছার, সম্পাদক মেহেদী নবীনগরে নৌকার প্রার্থী ফয়জুর রহমান বাদলকে নির্বাচিত করার লক্ষ্যে পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত নবীনগরে যথাযথ মর্যাদায় বিশ্ব শিক্ষক দিবস উদযাপন। নবীনগরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান। সূর্যতরুন সমাজ কল্যাণ সংস্থা’র গুণীজন ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা গুণীদের কদর না করলে কখনোই সমাজে গুণীরা তৈরি হয় না:ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরী বর্তমান সময়ে লেখাপড়ার কোনো বিকল্প নাই:সাংসদ এবাদুল করিম বুলবুল।
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন

আখাউড়ায় জমি দখলের চেষ্টা, বাড়িঘরে হামলা

প্রতিনিধির নাম / ৫৮৩ বার
আপডেট : শনিবার, ২০ মে, ২০২৩

জুয়েল মিয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় বাড়িঘর ভাংচুর করে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের গঙ্গানগর গ্রামের মৃত ইউনুছ মিয়ার ছেলে দানিছ মিয়া (৬০) এ অভিযোগ করেন। মঙ্গলবার রাত ২টার সময় একই এলাকার হারেজ মোল্লার (৬০) নেতৃত্বে একদল লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দানিছ মিয়ার বাড়িতে হামলা চালিয়ে টিনের ঘর, দরজা, টিনের বেড়া কুপিয়ে ভাংচুর করে। প্রাণনাশের হুমকিও দেয় হামলাকারীরা। এই ঘটনার পর ভুক্তভোগী দানিছ মিয়া ও তার প্রতিবন্ধী বোবা স্ত্রী আতংকে দিনযাপন করছে।
এই ঘটনার বিচার চেয়ে আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ এর নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন দানিছ মিয়া। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দানিছ মিয়ার যায়গার পূর্ব পাশে হারেজ মোল্লার পুকুর রয়েছে। হামলার ঘটনার কিছুদিন পূর্বে স্থানীয় সাহেব সর্দাররা সালিশে বসে উভয়ের যায়গা পরিমাপ করেন। পরিমাপে হারেজ মোল্লার দখলে দশ শতক যায়গা বেশি পাওয়া যায়। দানিছ মিয়ার যায়গার পশ্চিম পাশে রেলওয়ের মালিকানাধীন যায়গা। দুইপক্ষকে ৫শতক করে ওই ১০শতক যায়গা বন্টন করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত কোনো পক্ষ মানেনি। বরং দানিছ মিয়ার যায়গা থেকে হারেজ মোল্লা আরও যায়গা দাবি করে। তাদের প্রতিবেশী নায়েক ইছহাকের ৭শতক যায়গা হারেজ মোল্লা দখল করে রাখারও অভিযোগ উঠেছে।
এবিষয়ে দানিছ মিয়া বলেন, আখাউড়া- আগরতলা রেললাইন নির্মাণের ফলে মোগড়া রেলস্টেশন সংলগ্ন আমার যায়গাটির মূল্য অনেকগুণ বৃদ্ধি পাওয়ায় যেকোনমূল্যে আমাকে উচ্ছেদ করে বহুতল মার্কেট নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে হারেজ মোল্লা গং। আমি স্বেচ্ছায় যায়গাটি ছেড়ে চলে না গেলে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দিচ্ছে হারেজ মোল্লা৷ হারেজ মোল্লার নেতৃত্বে ৪জন রাত ২টার সময় আমার বাড়িতে হামলা চালায় । আমার ৫শতক যায়গা হারেজ মোল্লাকে দিয়ে দেওয়ার জন্য হুমকি ধমকি দিচ্ছে । অথচ হারেজ মোল্লার দখলে ১০শতক যায়গা বেশি আছে। গত রবিবার সালিশে রতন মুহুরী, জাঙ্গাল গ্রামের খলিল সর্দার, বাহার সর্দার সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। অভিযুক্ত হারেজ মোল্লা বাড়িঘর ভাংচুর করে জোরপূর্বক যায়গা দখলের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ