শিরোনাম :
নবীনগর বাজারের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণ না করার দাবিতে ও স্মারকলিপি প্রদান নবীনগরে ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ লাঠি খেলা দেখতে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড়। নবীনগর উপজেলা শাখা সাংবাদিক কল্যাণ পরিষদ (বাসকপ) আংশিক কমিটি ঘোষণা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক সমিতির সভাপতি জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মাসুম নবীনগর সাংবাদিক সমিতির আত্মপ্রকাশ, সভাপতি কাউছার, সম্পাদক মেহেদী নবীনগরে নৌকার প্রার্থী ফয়জুর রহমান বাদলকে নির্বাচিত করার লক্ষ্যে পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত নবীনগরে যথাযথ মর্যাদায় বিশ্ব শিক্ষক দিবস উদযাপন। নবীনগরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান। সূর্যতরুন সমাজ কল্যাণ সংস্থা’র গুণীজন ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা গুণীদের কদর না করলে কখনোই সমাজে গুণীরা তৈরি হয় না:ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরী বর্তমান সময়ে লেখাপড়ার কোনো বিকল্প নাই:সাংসদ এবাদুল করিম বুলবুল।
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন

নবীনগরে জনস্বার্থে রাস্তা অবমুক্ত করতে ব্যক্তিগত জায়গার নেট পিলার খুলে ফেলার অভিযোগ।

প্রতিনিধির নাম / ৬০১ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১১ মে, ২০২৩

নুর মোহাম্মাদ নবীনগর –

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগরের জিনদপুর ইউনিয়নের পান্ডবনগরে কাদির পুলিশ গংরা নিজেদের ডোবা ও নাল শ্রেণি প্রকৃতির ব্যক্তিগত জায়গা মাঠি ফেলে ভরাট করে। পরে ঐসকল জায়গার চারদিকে গাছ লাগানো উদ্দেশ্যে ছোট ছোট পিলার ও নেট দেয়।কিন্তু পূর্বে নাল ও ডোবা থাকাবস্থায় ঐসকল জমির পাশ দিয়ে চলাচল করা বিপরীতে পাশের বাড়িরঘরের ৩০ টি পরিবারের লোকজনের চলাচলের অসুবিধা হওয়ায় তারা চলাচলের সুবিধার্থে ঐ নেট ও পিলার উঠিয়ে ফেলে। এতে ঐ সকল জমির মালিক সুমন,রাসেল,তারেকগংরা অভিযোগ তুলেন তাদের জমির পাশ দিয়ে নয় বরং পাশ্ববর্তী আব্দুর রহমানের বসত বাড়ি ও তাদের সকলের মিলিত মালিকানা ডোবার শ্রেণি ভূমির পাশ দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের রাস্তা থাকা সত্বেও ঐ সকল পরিবারের লোকজন হঠাৎ করে বর্তমান চেয়ারম্যান ও মেম্বারের উপস্থিতিতে তাদের জমিতে দেয়া পিলার ও নেট উঠিয়ে ফেলে অনেক ক্ষয় ক্ষতি করেছে।

এবিষয়ে জমির মালিক পক্ষের কাদির পুলিশের ছেলে সুমন জানান,আমরা পৈত্রিক সুত্রে জায়গার মালিক অথচ আমাদের জায়গায় দেয়া পিলার নেট হঠাৎ তারা জোরপূর্বক উঠিয়ে ফেলেছে ,এতে আমাদের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে পাশের বাড়ির লোকজনের চলাচলের রাস্তা আমাদের সকলের মিলিত ডোবা ও আব্দুর রহমান মিয়ার বাড়ির পাশে দিয়ে ।এই জায়গায় এতদিন ডোবা ছিল তা আমরা মাটি ফেলে ভরাট করেছি নিজেদের কাজে।তারা এখন জোর করে এদিক দিয়ে রাস্তা নিতে চাচ্ছে।

নেট ও পিলার উঠিয়ে ফেলার সময় উপস্থিত একাধিক প্রত্যক্ষোদর্শীরা জানান,রাস্তা পূর্ব দিকে এছাড়া এদের এই জায়গা জমি ও ডোবা থাকাবস্থায় মানুষ জমির আইল দিয়ে হেটে মাঝে মধ্যে চলাচল করত।এখন তারা তাদের প্রয়োজনে ভরাট করে নেট ও পিলার দিয়েছে, এগুলো উঠিয়ে ফেলা হয়েছে আমাদের চোখের সামনে।

নেট ও পিলার উঠিয়ে ফেলার অভিযোগ উঠা বিপরীত পাশের ইউনুস মিয়ার বাড়ির একাধিক ব্যক্তি জানান,এদিক দিয়ে দুপাইয়া রাস্তা ছিল এখন সুমন,তারেক,রাসেলদের পয়সা হয়ে যাওয়ায় তারা তা বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা গরীব অসহায় মানুষ এখন কোনদিক দিয়ে বাড়িতে আসাযাওয়া করব একথা চিন্তা করে তাদের দেয়া রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা চেয়ারম্যান ও মেম্বার খুলে দিয়ে আমাদের চলাচলের সুবিধা করে দিয়েছে।

এবিষয়ে জিনদপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান রবিউল আউয়াল রবি জানান, বিষয়টি জনস্বার্থে আমাকে ঐ ওয়াড মেম্বার অবগত করায় আমি সরজমিনে গিয়ে ছাত্র/ছাত্রীদের স্কুল,মুসল্লীদের নামাজের জন্য মসজিদ ও হাটাবাজারের পায়ে হেঁটে যাওয়ার মত নেট খুলে দিতে বললে তারা কেউ রাজি না হওয়ায় আমি আবাদত চলাচলের জন্য নেট খুলে দিয়েছি।পরবর্তীতে সবার সাথে বসে সিদ্ধান্ত নিয়ে সরকারি অনুদানে স্থায়ী রাস্তা নির্ধারণ করে দিব।এখানে আমার কোন ব্যক্তিগত স্বার্থ নেই সবই করেছি অসহায় পরিবারের কথা চিন্তা করে।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ